পীরের মামলায় বেসামাল নারী পুরুষসহ ৮জন

0
688

এবার রাজারবাগ দরবার শরিফের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে হাজির হয়েছেন শিশু, মহিলা, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, মাদ্রাসার শিক্ষক ও ব্যবসায়ীসহ ৮ জন। রাজারবাগ পীরেএ সব সম্পদের তথ্য বিবরণী দাখিলের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেছেন এসব ব্যক্তি। এই ৮ জনের প্রত্যেকেই দরবার শরিফের পীরের মুরিদদের দ্বারা গায়েবি মামলার শিকার। রিট আবেদনে বিবাদী করা হয়েছে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের জ্যৈষ্ঠ সচিব ও আইজিপিসহ মোট ২০ জনকে।

একের পর এক মামলায় বিধ্বস্ত হয়েছেন গৃহিণীরা। আবার সাত বছর বয়সে থাকা অবস্থাতেই মানবপাচারের মামলাও জুটেছে অনেকের কপালে।

তাদের বক্তব্য, আমাদের পরিবারটা ছিন্ন ভিন্ন হয়ে গেছে। আমরা এখন পথের ফকির। সারাদিন শুধু আদালতে আদালতে ঘুরছি। আমাদেরকে অযথা নির্যাতন করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ৭ জুন ৫৫ বছর বয়সী একরামুল হাসানের বিরুদ্ধে ৪৯টি মামলার বাদী ও সত্যতার বিষয়ে তদন্ত করে সিআইডি। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলায় করা মামলার নেপথ্যে রাজারবাগ দরবার শরীফের পীর, তাদের মুরিদ ও অনুসারীদের জড়িত থাকার তথ্য উঠে আসে সিআইডির প্রতিবেদনে। তাতে বিস্ময় প্রকাশ করেন আদালত।

আদালতের নজরে রাজারবাগ পীরের এমন অপকর্ম চলে আসার পরেই এই আট ভুক্তোভোগী নিজেদের বিরুদ্ধে সারা দেশে করা মামলার বিষয়ে তদন্ত ও রাজারবাগ দরবার শরিফের সম্পদের তথ্য দাখিলের নির্দেশনা চেয়ে রিট করেন।

রিটকারীদের আইনজীবী শিশির মনির বলেন, সম্পত্তি হাত করার জন্যই এ মামলাগুলো করা হচ্ছে। এক মামলায় জেলে যায়। জামিন পেলেও বের হতে পারে না তারা। কারণ জেল গেটেই তাদের আবার অন্য মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

রিট আবেদনে স্বরাষ্ট্র সচিব ও আইজিপিসহ বিবাদী করা হয়েছে ২০ জনকে। রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) হাইকোর্টে এ রিটের শুনানি হতে পারে বলে জানা গিয়েছে।

পূর্ববর্তী নিবন্ধতালেবান সরকারকে সমর্থন দিয়ে যা বললেন রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন
পরবর্তী নিবন্ধদিনাজপুরে জঙ্গি সন্দেহে মসজিদ থেকে ৪৫ জনকে গ্রেফতার

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে