সামাজিক মাধ্যম, অসামাজিক মন্তব্য!

1
788

সাইফুর সাগর

আমরা ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন বাতিলের জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করে যাচ্ছি। সকল ধর্ম-বর্ণ, সকল রাজনৈতিক দল ও সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ নির্বিশেষে যেনো অবাধ ইচ্ছা প্রকাশের সুযোগ পাই।

এই চাওয়ার পাশাপাশি ভয়ও করে কিছু মানুষের অনলাইন বিচরণ আর আচরণ দেখে। কিছু মানুষের মন্তব্য এবং উদ্ধৃতি এতটাই উশৃঙ্খল এবং কদর্য, যেনো ছুরির আঘাতের চেয়েও বিষময়। এটা এমন হয়েছে যে, আলেম-ওলামাদের কিছু স্ট্যাটাসের মন্তব্যের মধ্যেও পরিলক্ষিত হয়েছে কতটা ভয়ঙ্কর মানসিকতা পোষণ করি আমরা। নিজের পছন্দের পরিপন্থী হলে মুহূর্তেই সবকিছু ভুলে গিয়ে দুই লাইন লিখে ফেলি, যা বছর বছরের পুরোনো সম্পর্ককেও ধূলিসাৎ করে দেয়।

‘কথা আর লেখা’ দুটোই এখন ভয়ঙ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে সামাজিক জীবনে। সহজলভ্যতা ও সহজ বিচরণ আমাদের যেমন স্বাধীনতা দিয়েছে, অন্যপিঠে তেমনি স্বাভাবিক জীবনকে হুমকির মুখেও ঠেলে দিচ্ছে।

ব্যক্তিগত জীবন, সামাজিক জীবন ও পেশাগত জীবন নিয়েও আলোচনা-সমালোচনা করতে দ্বিধাবোধ করছে না অনেকেই। বিনা পরিচয়ে অনেকেই এমন কিছু মন্তব্য করে ফেলছে, যা স্ট্যাটাসকারীর সাথে কোনো যোগসূত্র রাখে না। অথচ কারো মিথ্যা তথ্য প্রদান অন্যকে প্রলুব্ধ করে অন্যের কাছে পৌঁছে দিতে। মিথ্যা তথ্যের উপর সমালোচনা-প্রিয় আমাদের মানুষগুলো ঘটনাবলী নিয়ে যাচাই করবার সুযোগ না থাকায় সেগুলি নিয়ে মুখরোচক আড্ডা আর আনন্দে মেতে ওঠে। এভাবে কখনো কখনো মিথ্যাই প্রতিষ্ঠিত হয়ে যায় আমাদের সমাজে।

একটি মিথ্যাকে বারবার বলতে থাকলে সেটিও একসময় সত্য হয়েই প্রতিষ্ঠিত হয়ে যায় আমাদের সমাজে, এটাই পরীক্ষিত সত্য। এর কারণে কত জীবন, কত সম্মান আর কত বিপন্নতা সংসারের বিভিন্ন পর্যায়ে ধ্বংস এনে দিয়েছে যার কোনো হিসেবে নেই।

তাই সবার প্রতি আহবান করবো, যেকোনো কথা বলা বা লেখা খুবই সহজ, কিন্তু সেই কথাগুলি কত বড়ো ক্ষতি করতে পারে তা অননুমেয়। সহজ প্রাপ্তির ব্যবহার কঠিনভাবে চিন্তা ভাবনা পর করা উচিত।

তাই মাঝে মাঝে ভয় হয়, ডিজিটাল আইন যেমন আমাদের কথা বলার অধিকার কেড়ে নিচ্ছে, তেমনি স্বাধীন মত প্রকাশের নামে অসঙ্গত কু-প্রকাশ স্বাধীনভাবে কথা বলার অধিকার কেড়ে নিচ্ছে। এই নিয়ে গভীরভাবে ভাবারও প্রয়োজন আছে বৈকি!

লেখক: সঞ্চালক, ফেস দ্যা পিপল উইথ সাইফুর সাগর

পূর্ববর্তী নিবন্ধকবিতা | একটি গণতন্ত্র এবং কয়েকটি সামাজিকতা – জুবায়ের আহম্মেদ
পরবর্তী নিবন্ধমোমের আলোয় প্রতীকী পরীক্ষা দিলো কুবির শিক্ষার্থীরা

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে